আমি নিশ্চিত নই ২০২১ সালে আসলে কি হয়েছে। মনে হয় যেন আমি খরগোশের গর্তে পড়ে এক বন্য স্বপ্নে আটকে ছিলাম। বলতে গেলে অনেকটা পরাবাস্তবের মত, আপনি যদি আমার মতো হন তবে আপনি সম্ভবত এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছেন যে বাস্তবতায় কোন কিছুই আর আগের মতো হবে না।

জীবনে এমন কিছু মুহূর্ত রয়েছে যা আপনার নিঃশ্বাসকে রুদ্ধ করে দেয়। আপনি যে বিশ্বের দিকে তাকাচ্ছেন তাঁর মাথা আর ঠিক নেই, আপনি গভীরভাবে সচেতন যে আপনি আপনার কানে যে ধাক্কা শুনতে পাচ্ছেন তা হল আপনার হৃদয় দুঃখ, ভয় এবং কষ্টে ফেটে যাচ্ছে। সুপার স্টোরের আইল দিয়ে যাওয়ার পথে একটি খুব পরিচিত শৈশবের চকলেটের প্যাকেট দেখে স্মৃতির জলপ্রপাত বইতে শুরু করে আর মনে করিয়ে দেয় যে জীবন কেমন ছিল এবং এখন কতটা পরিবর্তিত হয়ে গেছে৷

হারিয়ে যাওয়া উদ্বেগ এবং সম্পর্কহীনতার অনুভূতির অনেকের জন্য হয়ে উঠেছে অপ্রতিরোধ্য। এ বছর বাড়িতে একাকীত্ব রাজত্ব করেছে। কাজ, সামাজিক ব্যস্ততা এবং পরিবারের ভার্চুয়াল বাস্তবতার দিকে এগিয়ে যাওয়ার কথা বলার লোকেরাও সম্ভবত ঠিক একইভাবে ভয় পাচ্ছে যে শারীরিক স্পর্শ এবং উপস্থিতির জন্য সত্যিই কোনও প্রতিস্থাপন নেই। আমাদের দেহগুলি আমাদের এই ধন যা হল সেই যোয়ই/জীবন বহন করার জন্য তৈরি করা হয়। সেই জীবন এখন বন্দী এক স্ক্রীনের পিছে সারাদিন।

২০২১ সালের ঘটনাগুলি এবং যে ক্ষতি তা করেছে তার কারণে আমি শুদ্ধ সম্মিলনের তীব্র আকাঙ্ক্ষা অনুভব করি। জাল বা অন্তহীন ভয়ের জন্য আমার খুব কম সখ্যতা আছে এবং আমি যদি আমার অবিশ্বাসকে স্থগিত করি তবে ফলাফল আরও ভালো হতে হবে। আপনি কি নিজেকে ভিন্নভাবে ভাবছেন? মানুষ জিনিসের চেয়ে বেশি গুরুত্বপূর্ণ। স্মৃতিগুলো মূল্যবান। জীবন সবসময় ছোট। প্রতিটি নিঃশ্বাস একটি অলৌকিক ঘটনা।

আমি অন্য দিন একটি রেষ্টুরেন্টে ধন্যবাদ কার্ড লিখছিলাম, একটি গরম আদা চায়ে চুমুক দিচ্ছিলাম। আদার সূক্ষ্ম সুবাস আমার নাকে আঘাত করার সাথে সাথে এই জায়গায় বসে থাকার চায়ে চুমুক দেওয়ার স্মৃতি জাগিয়ে তুলল, অসময়ে চলে যাওয়া একজন প্রিয় বন্ধুর সাথে সময় কাটানোর স্মৃতি। অনিচ্ছায় চোখের জল গড়িয়ে পড়ল।

আমি যীশুর হাতে আমার চেহারা ধরে রাখার একটি ছবি নিয়ে এই সপ্তাহে ঘুরেছি। আমি জানি না এটা কখন ঘটেছে। কিন্তু এটা এত স্পষ্ট, এমনকি বাস্তব মনে হয়, যেন একটি শিশুর চেহারা ধরে রাখা হয়েছে। আমি তার দৃষ্টির কেন্দ্রবিন্দু। আমার প্রতি তার অবিভক্ত মনোযোগ আছে। কোন শব্দের প্রয়োজন নেই। আমি তার চোখে সহচর নীরবতা দেখতে পাচ্ছি। নিখুঁত ভালবাসা, এমন একজনের যিনি আমার চেয়ে বেশি কষ্ট পেয়েছে, আমার জন্য।

আমি ভাবলাম, আহা, যিনি স্বর্গ ও পৃথিবী সৃষ্টি করেছেন, তিনি আমার চেহারা ধরে আছেন! সবকিছু ঠিক হয়ে যাবে।

আপনাদের সবাইকে শুভ নববর্ষ! এই আগামী বছরে আপনি হয়ে উঠুন ধিরস্থির, তার হাতে আপনার মুখকে ধরে রাখার সুযোগ দিন। আপনার চিন্তার দৌড় বন্ধ করতে ঠিক যতটুক সময় লাগে। তার দৃষ্টির উপর মনোযোগ দিন। তাঁর শান্তি আপনাকে রূপান্তরিত করতে দিন যা আপনার হৃদয় এবং মনকে রক্ষা করে।

 

এ.জি.আর. দ্বারা জমা দেওয়া।

8 ডিসেম্বর, ২০২১

(বিশ্বব্যাপী আমাদের ৩৬০ কালেকটিভ লেখক এবং ব্লগারদের থেকে শেয়ার করা)

 

Contact Us

  • This field is for validation purposes and should be left unchanged.
Recent Posts

Leave a Comment